Home খেলাধুলা কোন ক্লাব কোন দেশের । কোন ফুটবল ক্লাব কোন দেশের

কোন ক্লাব কোন দেশের । কোন ফুটবল ক্লাব কোন দেশের

by Rezaul Karim
কোন ফুটবল ক্লাব কোন দেশের

কোন ফুটবল ক্লাব কোন দেশের বা কোন ক্লাব কোন দেশের তা অনেকেই জানেন না। এসব বিষয় জানতে গুগলে সার্চ করেন। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পান না। তাদের জন্যই আজকের এই লেখাটি।

বিশ্বের নামিদামি ফুটবল ক্লাব গুলোর মধ্যে রয়েছে পিএসজি, রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা, লিভারপুল, জুভেন্টাস, ম্যানচেস্টার সিটি, চেলসি, ম্যানেচেস্টার ইউনাইটেড, বায়ার্ন মিউনিখ ইত্যাদি। এই ক্লাব গুলো শুধু নিজ দেশের খেলোয়াড়দেরই অন্তর্ভূক্ত করে না। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সেরা সেরা খেলোয়াড়দের অন্তর্ভুক্ত করে সেরা টিম গঠন করে। ফলে প্রায় প্রতি বছরই উয়েফা চ্যাম্পিয়নস, লা লিগা, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, কোপা, ইউরোপা লিগ এর মতন টুর্নামেন্টে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকে এসব ক্লাব। আর ফুটবল বিশ্বকেও রাখে চাঙ্গাময়।

আজকের আর্টিকেল থেকে যেসব বিষয়ে জানতে পারবেন তা হলো- বার্সেলোনা কোন দেশের ক্লাব, রিয়াল মাদ্রিদ কোন দেশের ক্লাব, লিভারপুল কোন দেশের ক্লাব, পিএসজি কোন দেশের ক্লাব, জুভেন্টাস কোন দেশের ক্লাব, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোন দেশের ক্লাব, চেলসি কোন দেশের ক্লাব, ম্যানচেস্টার সিটি কোন দেশের ক্লাব, বায়ার্ন মিউনিখ কোন দেশের ক্লাব, আর্সেনাল কোন দেশের ক্লাব,টটেনহাম কোন দেশের ক্লাব,ইন্টার মিলান কোন দেশের ক্লাব। চলুন তবে কথা না বাড়িয়ে যেখে আসি বিশ্বের সেরা সেরা ক্লাব গুলোর মধ্যে কোন ক্লাব কোন দেশের।

কোন ফুটবল ক্লাব কোন দেশের জেনে নিন

বিশ্বের নামিদামি সেরা প্লেয়ার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসি, নেইমার জুনিয়র, কিলিয়ান এমবাপ্পে সহ এক সময়ের মাঠ কাঁপানো রোনালদিনহো, দিয়াগো ম্যারাডোনা, জিনেদিন জিদান সবাই বিশ্বের কোনো না কোনো ক্লাব থেকে উঠে এসেছেন। বলা যায়, এসব ফুটবলারদের উঠে আসার মই বা সিঁড়িই ছিল এইসব ক্লাব। তাই বিশ্বের বিখ্যাত বিখ্যাত খেলোয়াড়দের জানার পাশাপাশি ভক্তদের তাদের ক্লাবগুলো সম্পর্কে জানার আগ্রহটাও থাকে বেশি। সেই জানার আগ্রহ পূরণ করতেই আজকের লেখাটি, কোনা ফুটবল ক্লাব কোন দেশের।

বার্সেলোনা কোন দেশের ক্লাব?

স্পেনের কাতালুনিয়ার বার্সেলোনা শহরে অবস্থিত বলে এই ক্লাবের নাম রাখা হয় বার্সেলোনা। অনেকে একে বার্সা নামেও চিনে থাকে। স্পেনের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই ক্লাবটির প্রতিষ্ঠাকাল ২৯ নভেম্বর ১৮৯৯ সালে। বিশ্বের বিখ্যাত বিখ্যাত খেলোয়াড়েরা খেলেছেন এই ক্লাবে। লিওনেল মেসি, রোনালদিনহো, নেইমার জুনিয়র, ম্যারাডোনার মতন সেরা খেলোয়াড়েরা এই ক্লাবে খেলেছেন। আর বর্তমান বিশ্বের দামি ফুটবল ক্লাবগুলোর মধ্যে বার্সেলোনার অবস্থান সপ্তম।

স্পেনের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনার বর্তমান মার্কেট প্রাইস প্রায় ৮০০ মিলিয়ন ইউরো। ক্লাবটির অনেক অর্জনের মধ্যে রয়েছে, 

উয়েফা সুপার কাপ শিরোপা জয় ৫ বার,

চ্যাম্পিয়ন লিগ জয় ৪ বার,

ফিফা ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ শিরোপা জয় ৩ বার,

স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন শিরোপা জয় ২৬ বার, এবং

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন ক্লাবের শিরোপা জয় ১ বার।

রিয়াল মাদ্রিদ কোন দেশের ক্লাব?

স্পেনের একটি পেশাদার ফুটবল ক্লাব হলো রিয়াল মাদ্রিদ। এটি স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদ  শহরে অবস্থিত। স্পেনের বিখ্যাত এই ক্লাবটির প্রতিষ্ঠাকাল ৬ মার্চ, ১৯০২ সাল। ব্রাজিলের রোনালদো থেকে শুরু করে রিকার্ডো কাকা, পর্তুগালের ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, ফ্রান্সের জিদান এই ক্লাবে খেলেছেন। বর্তমানে এই ক্লাবটির অবস্থান ষষ্ঠ। এবং এর মার্কেট ভ্যালু প্রায় ৯০০ মিলিয়ন ইউরো।

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের অর্জনের মধ্যে রয়েছে,

উয়েফা সুপার কাপ শিরোপা ৫ বার,

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন ক্লাব ৬ বার,

চ্যাম্পিয়ন লিগ কাপ জয় ৮ বার, 

ফিফা ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ জয় ৪ বার, এবং

স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন ৩৫ বার।

লিভারপুল কোন দেশের ক্লাব?

ইংল্যান্ডের লিভারপুল শহরে অবস্থিত বলে শহরের নামানুসারে এই ক্লাবের নাম রাখা হয় লিভারপুল। ইংল্যান্ডের পেশাদার এই ক্লাবটি প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৮৯২ সালে। বর্তমানে এটি বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ দামি ক্লাব। এবং এর মার্কেট ভ্যালু প্রায় ৯৩০ মিলিয়ন ইউরো।

বর্তমান লিভারপুলের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় মোহাম্মদ সালাহ। সালাহকে পেতে ক্লাবটি প্রায় ৮০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করেছে। ইংল্যান্ডের জনপ্রিয় এই ক্লাবের বর্তমান মালিক ফেনওয়ে স্পোর্টস গ্রুপ।

পিএসজি কোন দেশের ক্লাব?

পিএসজি এর পূর্ণরূপ হলো প্যারিস সেন্ট জার্মেই এফ.সি ক্লাব। কাজেই বুঝতেই পারছেন ক্লাবটি ফ্রান্সে অবস্থিত। এটি ফ্রান্সের একটি পেশাদার ফুটবল ক্লাব। রাজধানী প্যারিসে ১২ই আগস্ট, ১৯৭০ সালে এই ক্লাবটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এই ক্লাবের বর্তমান মার্কেট ভ্যালু প্রায় ৯১৫ মিলিয়ন ইউরো। এবং ক্লাবটির বর্তমান মালিক কাতার স্পোর্টস ইনভেস্টমেন্টস। আর চেয়ারম্যান হলেন কাতারের নাসের আল-খেলাইফি।

কোন ক্লাব কোন দেশের

১৮৩ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় কিলিয়ান এমবাপ্পে এই ক্লাবের উজ্জ্বল এক তারকা। এই ক্লাবটির অর্জনের মধ্যে যা যা রয়েছে সেগুলো হলো-

ফ্রান্স চ্যাম্পিয়ন কাপ ১০ বার,

ফ্রান্স কাপ ১৪ বার,

ফ্রান্স লীগ কাপ ৯ বার,

ফ্রান্স সুপার কাপ ১১ বার, এবং

উইনার কাপ জিতেছে ১ বার।

জুভেন্টাস কোন দেশের ক্লাব?

ইতালির সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি ফুটবল ক্লাব হলো জুভেন্টাস। এটির প্রতিষ্ঠাকাল হলো ১লা নভেম্বর, ১৮৯৭। বিশ্বের সব দামি দামি ক্লাবগুলোর মধ্যে জুভেন্টাসের অবস্থান ১৭ তম। এবং বর্তমানে এর মার্কেট ভ্যালু প্রায় ৪৬৫ মিলিয়ন ইউরো।

জুভেন্টাসের অনেক অর্জনের মধ্যে রয়েছে,

ইটালিয়ান চ্যাম্পিয়ন ৩৬ বার,

উয়েফা কাপ শিরোপা জয় ৩ বার,

উয়েফা সুপার কাপ শিরোপা জয় ২ বার,

চ্যাম্পিয়ন লিগ শিরোপা ১ বার, এবং

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন ক্লাব শিরোপা জয় ১ বার।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোন দেশের ক্লাব?

ইংল্যান্ডের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব হলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এটি ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার শহরে অবস্থিত বলে এর নাম রাখা হয় ম্যানচেস্টার ক্লাব। এই ক্লাবটির প্রতিষ্ঠাকাল ১৮৭৮ সাল। এই ফুটবল ক্লাবটি বর্তমানে ব্যয়বহুল ক্লাবগুলোর মধ্যে নবম স্থানে অবস্থান করছে। এর মার্কেট ভ্যালু প্রায় ৭৩০ মিলিয়ন ইউরো।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোন দেশের ক্লাব

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ক্লাবের অনেকগুলো অর্জনের মধ্যে রয়েছে,

ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন ২০ বার,

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন ক্লাব শিরোপা ২ বার,

চ্যাম্পিয়ন লিগ শিরোপা ২ বার,

ফিফা ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ শিরোপা ২ বার, এবং

উয়েফা সুপার কাপ শিরোপা জয় ১ বার।

চেলসি কোন দেশের ক্লাব?

ইংল্যান্ডের অন্যতম জনপ্রিয় আরেকটি ক্লাব হলো চেলসি। এটি ১৯০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে দামি ক্লাবগুলোর মধ্যে চেলসির অবস্থান ৫ম স্থানে। এবং এর বর্তমান মার্কেট ভ্যালু প্রায় ৯১৫ মিলিয়ন ইউরো।

চেলসি ফুটবল ক্লাবের ম্যানেজার হলেন ইংল্যান্ডের সাবেক ফুটবলার গ্রাহাম পটার। এই ক্লাবের অনেকগুলো অর্জনের মধ্যে রয়েছে,

ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন ৬ বার,

উয়েফা সুপার কাপ শিরোপা জয় ২ বার,

চ্যাম্পিয়ন লিগ শিরোপা জয় ২ বার,

ইউরোপা লীগ শিরোপা জয় ২ বার, এবং 

ফিফা ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ শিরোপা জয় ১ বার।

ম্যানচেস্টার সিটি কোন দেশের ক্লাব?

ম্যানচেস্টার নামটি শুনেই নিশ্চই বুঝতে পারছেন ক্লাবটি কোন দেশের। কারণ এর আগে আমরা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ক্লাব সম্পর্কে জেনেছি, যেটি ইংল্যান্ডে অবস্থিত। ম্যানচেস্টার সিটি ক্লাবটিও ইংল্যান্ডেই অবস্থিত। ১৯৮০ সালে প্রতিষ্ঠাকালীন এই ক্লাবের নাম ছিল সেন্ট মার্কস। পরে ১৯৮৭ সালে ক্লাবটির নতুন নামকরণ করা হয় এ,এফ,সি নামে। এরপর সর্বশেষ ১৮৯৪ সালে নাম পরিবর্তন করে বর্তমান নাম ম্যানচেস্টার সিটি রাখা হয়। 

ম্যানচেস্টার সিটি কোন দেশের ক্লাব

ম্যানচেস্টার সিটি বিশ্বের সবচেয়ে দাবি ক্লাব। এই ক্লাবের বর্তমান মার্কেট ভ্যালু হচ্ছে ১.১১  বিলিয়ন ইউরো। 

ম্যানচেস্টার সিটি ক্লাবের বর্তমান মালিক হচ্ছে সিটি ফুটবল গ্রুপ। এবং ক্লাবের ম্যানেজার স্পেনের সাবেক ফুটবল তারকা পেপ গার্দিওলা।

ম্যানচেস্টার সিটির অনেক অর্জনের মধ্যে রয়েছে,

ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন শিরোপা জয় ৮ বার,

উইনার কাপ শিরোপা জয় ১ বার,

ফিফা কাপ শিরোপা জয় ৬ বার,

ইংলিশ লীগ কাপ শিরোপা ৮ বার, এবং

ইংলিশ সুপার কাপ শিরোপা ৬ বার।

বায়ার্ন মিউনিখ কোন দেশের ক্লাব?

জার্মানির একটি জনপ্রিয় পেশাদার ফুটবল ক্লাব হলো বায়ার্ন মিউনিখ ফুটবল ক্লাব। এটি বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামি ক্লাব। এর বর্তমান মূল্য প্রায় ৯৪০ মিলিয়ন ইউরো।

বায়ার্ন মিউনিখের বর্তমান মালিক হলেন হার্বাট হাইনার আডিডাস এবং ম্যানেজার হলেন জার্মানির সাবেক ফুটবল তারকা জুলিয়ান নাগেলসম্যান।

আর্সেনাল কোন দেশের ক্লাব?

আর্সেনাল ফুটবল ক্লাবটিও ইংল্যান্ডের জনপ্রিয় একটি ক্লাব। এটি ১৯৮৬ সালে লন্ডনে প্রতিষ্ঠা করা হয়। বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে দামি ক্লাবগুলোর তালিকায় এর অবস্থান অষ্টম। এর বর্তমান মার্কেট মূল্য প্রায় ৭৬০ মিলিয়ন ইউরো।

আর্সেনাল ফুটবল ক্লাবটির বর্তমান ম্যানেজার স্পেনের সাবে ফুটবল খেলোয়াড় মিকেল আর্টেটা। এই ক্লাবটির অর্জনের মধ্যে রয়েছে,

ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন ১৩ বার,

এফ এ কাপ চ্যাম্পিয়ন ১৪ বার,

ইংলিশ সুপার কাপ চ্যাম্পিয়ন ১৬ বার, এবং

ইংলিশ লীগ কাপ চ্যাম্পিয়ন ২ বার।

এছাড়া আরও রয়েছে

টটেনহাম কোন দেশের ক্লাব?

ইন্টার মিলান কোন দেশের ক্লাব?

উত্তর: ইতালি

অতএব, আশা করি, কোন ক্লাব কোন দেশের অর্থাৎ কোন ফুটবল ক্লাব কোন দেশের তা জানতে পেরেছেন। লেখাটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ।