Home শিক্ষানৃবিজ্ঞান ধর্মনিরপেক্ষতা কি | ধর্মনিরপেক্ষতা কাকে বলে

ধর্মনিরপেক্ষতা কি | ধর্মনিরপেক্ষতা কাকে বলে

by Rezaul Karim
ধর্মনিরপেক্ষতা কি, ধর্মনিরপেক্ষতা কাকে বলে,

ধর্মনিরপেক্ষতা

Secularism বা ধর্মনিরপেক্ষতা ধর্মের একটি অস্বাভাবিক রূপ এবং ধর্মীয় আদর্শের সাথে এটি সংগতিপূর্ণ নয়। আধুনিক কালে এটি একটি রাষ্ট্রীয় সংজ্ঞা হিসেবে প্রতিপন্ন হয়েছে এবং ধর্ম সম্পর্কে কোন কোন রাষ্ট্রের দৃষ্টিভঙ্গি হচ্ছে নিরপেক্ষ। অর্থাৎ সকল ধর্মের প্রতি রাষ্ট্রের ধারণা সমধর্মীয়।

ধর্মের সংজ্ঞা

‘Random House Dictionary of English Language’ এ ধর্মনিরপেক্ষতা বা Secularism এর সংজ্ঞা দেয়া হয়েছে এভাবে-

i. “Not regarded as religious or spiritual sacred.”- যা ধর্মীয় বা আধ্যাত্মিকভাবে পবিত্র বলে বিবেচিত নয়।

ii. “Not pertaining to or connected with any religion.”- যা কোন ধর্মের সাথে সংগতিপূর্ণ নয়।

iii. “Not belonging to a religious order.”- যা কোন ধর্ম বিশ্বাসের অন্তর্গত নয়।

Bushman তাঁর ‘Dictionary of Sociology’ গ্রন্থে বলেন, “Secular society refers to a society whose primary values have been utilization and rational and that accepts and promotes change and innovation. ” অর্থাৎ, ধর্মনিরপেক্ষ সমাজ বলতে এমন সমাজকে বুঝায়, যেখানে উপযোগবাদী নীতি এবং মুক্তি হচ্ছে প্রাথমিক মূল্যবোধ এবং এখানে পরিবর্তন ও নবতর উদ্ভাবনকে শুধু গ্রহণ নয়, বরং উৎসাহ প্রদান করে।

একথা সত্য যে, পৃথিবীর যত ধর্ম আছে তাতে কোন ধর্মীয় আদর্শই ধর্মনিরপেক্ষতাকে স্বীকৃতি দেয় না। ধর্মনিরপেক্ষতার মৌল প্রতিপাদ্য বিষয় হলো কোন সমাজ, কিংবা রাষ্ট্রে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটুট থাকা এবং সাম্য, মৈত্রী, ভ্রাতৃত্ব ও সংহতিবোধে উদ্বুদ্ধ হওয়া।

ধর্মের উৎপত্তি সম্পর্কে ই.বি টেইলরের মতবাদ

বস্তুত বিশ্বের শান্তি, শৃঙ্খলা, উন্নয়ন ও প্রগতির জন্যই যে কোন সমাজ কিংবা রাষ্ট্রে ধর্মনিরপেক্ষতা অপরিহার্য বলে বস্তুবাদীরা মনে করেন।

Related Posts