Home শিক্ষাইতিহাস সভ্যতা কি বা সভ্যতা কাকে বলে?

সভ্যতা কি বা সভ্যতা কাকে বলে?

by Rezaul Karim
সভ্যতা কি বা সভ্যতা কাকে বলে

সভ্যতা কি বা কাকে বলে?

মানবসমাজ নানা ঘাত-প্রতিঘাত ও অন্তর্ঘাত এবং চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে বিবর্তনিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ক্রমান্বয়ে অগ্রগতির দিকে ধাবিত হয়েছে। ঐ অগ্রগতির সহায়ক হিসেবে উদ্ভাবিত হয়েছে পরিবার, বিবাহ, আইন, সরকার, ব্যবসায় বাণিজ্য, আদর্শ, মূল্যবোধ, লিখন পদ্ধতি এবং সুস্পষ্ট ধর্মীয় দর্শন। মানবজাতির এসব জীবনাচরণের সম্মিলিত সমন্বয়ই সভ্যতা যা মানবগোষ্ঠীর ভাষা, রাজনৈতিক সংগঠন এবং সামাজিক প্রথা-প্রতিষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বিকাশ লাভ করে।

সৃষ্টির আদিলগ্ন থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত মানবগোষ্ঠী তার প্রয়োজনে যা সৃষ্টি করল তাই সংস্কৃতি। আর এ সংস্কৃতিই হলো সভ্যতার প্রাণ, যাকে কেন্দ্র করে সভ্যতার আবির্ভাব ঘটলো।

আরও পড়ুন:   সংস্কৃতির অসম অগ্রগতি তত্ত্বটি পর্যালোচনা কর

সভ্যতা শব্দের ব্যুৎপত্তি

সভ্যতার ইংরেজি প্রতিশব্দ হলো Civilization. শব্দটি Latin শব্দ ‘Civilis’ থেকে এসেছে, যার অর্থ হলো নাগরিক। সুতরাং Civilization শব্দটির অর্থ হলো সুসভ্য নাগরিক সমাজ, যেখানে নগর রাষ্ট্রের উদ্ভব ঘটে। দার্শনিক ভলতেয়ার সর্বপ্রথম এ শব্দটি ব্যবহার করেন।

সভ্যতার সংজ্ঞা

মন্টেস্কু এবং হান্টিংটন বলেন, “সভ্যতা হলো ভৌগোলিক তথা প্রাকৃতিক পরিবেশের একটি আশীর্বাদপুষ্ট ফসল।”

Morgan তাঁর ‘Ancient Society‘ গ্রন্থে বলেন, “সভ্যতা হলো বিবর্তন নামক সিঁড়িটির এক শীর্ষ ধাপ। যে সমাজে লেখ্য ভাষা ও বর্ণমালা আছে, ধাতুর তৈরি ব্যবহার ও লিখিত দলিলের ব্যবহার আছে সে সমাজই সভ্য।”

R. M. MacIver বলেন, “Our civilization is that we use.” (MacIver, R. M. The Modern State; P-235) অর্থাৎ, আমরা যেসব উপকরণ ও দ্রব্যসামগ্রী ব্যবহার করি সেসব একযোগে হলো আমাদের সভ্যতা।

T. B. Bottomore তাঁর ‘Sociology’ গ্রন্থে বলেন, “By civilization we mean a cultural complex formed by the identical major cultural features of a number of particular societies.” (Sociology, P-126) অর্থাৎ, সভ্যতা বলতে আমরা একটি সাংস্কৃতিক জটিল রূপকে বুঝি, যা কয়েকটি সুনির্দিষ্ট সমাজের প্রধান সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্যগুলো দ্বারা গঠিত।

Gillin and Gillin এর মতে, “Civilization is a more complex and evolved form of culture.” অর্থাৎ, সভ্যতা হচ্ছে সংস্কৃতির অধিকতর জটিল এবং বিবর্তিত রূপ।

উপরে সভ্যতা সম্পর্কে যেসব উদ্ধৃতি দেওয়া হলো তাতে লক্ষ্য করার বিষয় যে, সভ্যতা হলো সংস্কৃতির অধিকতর জটিল এবং অগ্রগতির ফল যা বংশপরম্পরায় লাভ করা যায়। বস্তুত এটি হলো নগর প্রপঞ্চ। নগরের বিকাশের সাথে সাথে সভ্যতার বিকাশ ঘটে এবং নগরের ধ্বংসের সাথে সাথে সভ্যতাও ক্ষয়প্রাপ্ত হয়।

Related Posts